এই লেখাটি 811 বার পড়া হয়েছে

দৃশ্য-৬-১০

দৃশ্য-৬

 

অক্তঃ- দিন (বেন্যামাধান)

জাগাঃ- বারানসী রেজ্যর রাজা ব্রম্মদত্তর রাজ মন্দির।

 

(মন্দিরবো সুরুং গোরি দুরত বুদ্ধমুত্তি দেঘা যেব’। সংঘদান থুম ওই ভাঝি উধিব’ ধীর গতিয়েঃ- সাধু—–সাধু——সাধু—–। তারপর বাদ্যবাজনা শুরু অভ’ রঙ্গলাল দাঘীর ঢুল বাজ্যানা। ঢুলর তালে তালে বেয়ারী পঞ্চরতন দাঘী সুর আহ্ধি নিঘিলি এবাক। সমারে তারা মোক্কুনও থেবাক।)

 

পত্থম থেব’ পঞ্চরতন

তা জেরে মানেকরতন

তা জেরে বায়ুরতন

তা জেরে বেল’রতন

বেগ জেরে অগ্নীরতন।

 

চারিত্রিক বৈশিষ্টঃ-

১। পঞ্চরতন নিবির নগভাঝ মোক্কও সেঝান

২। মানেকরতন উবরচালা মনা মোক্কও সেঝান

৩। বায়ুরতন’ ধোক্যা

৪। বেল’রতন উরনচন্দি জিগিলক বাবত্যা

৫। অগ্নীরতন রগচদা বাবত্যা ঠিক তারা দ্বিজনর মোক্কুনও সেবাবত্যা অভাক।

 

তারার ভাঝা দিএ্যা প্রমাণ ঃ-

১। পঞ্চরতনে পধত লাঘত পেয়্যা গরীব দুখ্যারে আলা ঝালা দে-না।

২। মানেকরতন আ বায়ুরতন ন’ দিবের আহ্ধ বিজেনা।

৩। বেল’রতন আর অগ্নীরতনে দেঘা যেব’ মানুষ উঝত মাত্যে।

তারা, যেই ফুরানার সমারে সমারে ঢুল বাজ্যেনা থুম ওই যেব’)

 

দৃশ্য-৭

 

অক্তঃ- দিন

জাগাঃ- বারানসী রেজ্যর বেয়ারী পঞ্চরতনর ঘর’ উধোন।

 

(পঞ্চরতন’ ঘর উধোনত পাঁচজনর পাঁচ্ছান ঘরা-গারি মাল পত্র তুলি টিপ টিপ্যা ওই থেব’। এ্যাই হাক্কে যাত্রা গোরিবেক। মোক্কুনে বিদেয় লধন। বিদেয় পালা থুম ওই রঙ্গলালদাঘী বলহিঝি ঢুলবাজানা আরম্ভ গোরিবেক। ঢুল বাজানা মহ্ ওই)

 

পত্থম রঙ্গলালঃ-   বরানসীর রেজ্য আমার

সুগে ভরা দেঝ

রাজা ব্রম্মদত্ত আমলে

কন’ কিচ্ছুর নেই শেষ।

পাঁচ রতœ যাদন্দে

বিদেশ বেয়ার যাদন্দে

গাড়ি ভর্তি রঝত ভোরেই

বিদেঝ বেয়ার যাদন্দে

তারা মোগে বিদেয় দেদন

চোগো পানি ফেলাদন

অচিন দেঝত হুচ ফেলাদন

কি অভ’ ন’ জানন।

(পঞ্চরতন দাঘী যেবাক্কই তারা মোক্কুনে চেই থেবাক)

 

দ্বিতীয় রঙ্গলাল       ঃ- ইজ্জদী বারানসীর মানেই লক, এই যে তারা বেয়ারত যাদন, তারার বেয়ার ফলা-না, ন’ ফলা-না ইয়েনীও বেগ কর্মগুনে  ফগদাং ওই উধিব’। ব্যবসা গর, বানিজ্য গর, চাগরী গর পুন্য গর, যেই গর-না কেন’ সদ মনে গোল্যে বেগ ফলে। বারানসী  নগরবাসীউনেও চেই আঘন তারা হেত্যা। তারা তেঙা কামেলে ইধু সনা ফলিব’ আর তেঙা ন’ কামেই অন্য কিজু গোল্যে ইধু দুগ বারিব’। পাবে ভরি যেব’ এই বারানসী রেজ্য।

 

পত্থম রঙ্গলাল        ঃ- বেয়ারীউন যাদন্দে

আহ্ধ’ আহ্ধ’ মাজনী দাঘী

বেয়ারীউন তারা কামত যাদন্দে

ঘরত যেইনে বর চেদাগোই

বেয়ারীউন যাদন্দে

পদ’ হেত্যা রেনী থেলে

ঘর কাম থেবদে

আহ্ধ’ আহ্ধ’ মাজনী দাঘী

বেয়ারীউন তারা কামত যাদন্দে

 

(বেয়ারীউনর মোক্কুনও এবার লারে লারে যেবাক্কই। আর

রঙ্গলাল দাঘীও থাঝি ঢুল বাজ্জেই আধেক্যা মহ্ যেবাক)

 

দৃশ্য-৮

 

অক্ত ঃ- সাজন্যা মাধান।

জাগা ঃ- গংগানদী থুম হিমালয় মুরো লেজা।

 

(বেয়ারী পঞ্চরতন দাঘী হিমালয়র মুরো লেজার গভীন ঝারত এ্যাই অহ্রান ওই আর আহ্ধ, থেং- ন’ আক্যনা আর আন্দার ওই চোগে পদ ন’ দেগানায় যে জুওত পায় চন্দুল চন্দুল অভাক)।

 

অগ্নীরতন             ঃ- ওই ভেই লক’ বেল’রতন ভেইবোদে আহ্ধি ন’ পারের

আর’। এক্কা বাচ্ছাগ’। (কধায়ান রতনদাঘীরে টাগী কব’)

ওভেই উদ এক্কা বল তুল’। পঞ্চরতন দাঘী ভালকদুরত

লুম্মন্দোই।  আর’ হানেক্কন আহ্ধি পারস কি-না বল তুলি

চা। (বেলরতনে  লধক ধধক গোরি আহ্ধিবের হুচ বারেবার

চেষ্টা গোরিব’)।

বেলরতন             ঃ- (অহ্রান ওই) আর-ন’ পারঙর ভেই! উহ্। এধক খেব

বেয়ারত লামিলং কন’ খেবদ’ এসান্যা ন’ ওই! কি অল-দে

ভেই, অগ্নী ?

মানেকরতন          ঃ- ওভেই লক, আন্দার -দ’ ওই এযের কি গোরিবং?

পঞ্চরতন  -দা তুমি কোদ্দুরত গেলা ?

পঞ্চরতন             ঃ- এ্যাই-দ’ মুই এক্কান কামাহ্ লাঘত পেয়ং। বোম্বাউন ধর’

আর’ কোদ্দুর আহ্ধি চেই।

বায়ুরতন              ঃ- (কন রগম আম্মুর কারি কারি পঞ্চরতন কায় এ্যাই) ভেই

ধন, আমি এচ্যা আর-ন’ পারিবং পারা পাং। আথ্যা ঘরাউন

দুগ পেবাক আমিও দুগ পেবং।, এচ্যা রেত্তো ইধু কাদেই।

কেল্যা বেন্যা হেলাং ভূয়োত পারিলে নিজানা ঠিক গোরি

পারিবং।

অগ্নীরতন             ঃ-(তেও কন’ রগম আম্মুর কারী কারী এ্যাই) পঞ্চরতন ভেই,

মুই আর-ন’ পারঙর।

পঞ্চরতন             ঃ- তেহ, এ্যাই অঘুর ঝার’ ভিদিরে কিঙিরি রেদ কাদেবং।

বলীমন্দ মানুষ এধক কেনে ঝাদি লাদ পলে ?

অগ্নীরতন             ঃ- বল থেইনে কি গোরিবে? এই আন্ধার’ মায় কিঙিরি

আহ্ধিবে। হিমালয়র অজল অজল মোন উধিলং লামিলং,

আর’ মুজুঙেদি কি আঘে সিয়েন-দ’ ন’ দেঘির।

মানেকরতন          ঃ- মনে অয় ভূদি বক্সা খুলি দ্বিবে খেই জাগা কাজেই  ঘুমত

পলে দোল অভ’-দে!

পঞ্চরতন             ঃ- সালেন ইয়দ রেদ কাদে- দং?

রতনদাগী ঃ- অয় —অয়—অয়।

পঞ্চরতন             ঃ- তমারে কোয়োং, উ—ই—ই পশ্চিম মোক্যা যে পত্তান

যেই- য়ে, সিয়েন্দি যেদং এধক্কন গংগা নদীর পারে পারে

যেইনে সিন্ধু  পারত লুমিদংগোই, ম’ কধা আমল–ন’ দুও।

বেলরতন             ঃ- আঁ-দা, কন্না কোই পারে এসান্যা অভদে! যা ওইয়্যা,

কেল্যাত্তুন ধোরি আর-ন’ অভ’।

পঞ্চরতন             ঃ-ওইয়্যা ওইয়্যা। যার বম্বা তে ধর’। পেদ’ ভুগ মারি ঘুমত

পর’।

(এ্যান অক্তত অগ্নীরতনে ভূদি উল্লেই চাই-দে, তা বম্বাব’ নেই)

অগ্নীরতন             ঃ-  তে নিয়েই, ম’ বম্বাব-দে, ন’ এযেদে।

পঞ্চরতন             ঃ- তমারে কোয়ং পঝা বিরে বেক্কানি অহ্ধে অহ্ধে- চ।

এযের  কিনা ন’ এযের।

(আর’ এ্যান অক্তত ঘরাউনে হেঝের হেঝের গোরি উধিবেক)

বেলরতন             ঃ- আমনর পরান যার, সে মরার ঘরাউনর’ কি ওইয়্যা! এ

রেত্তো ঘুম-ন’ নেযেবাক ইয়ে।

পঞ্চরতন             ঃ- উহ্ ! বেল ভেই, কধানি এক্কা নগভাঝ গোরি কোচ-না।

আ- তুমি ঘরাউনরে খেবার ন’ দুও -নে?

অগ্নীরতন             ঃ- আঃ ভেই, পঞ্চ তুই এক্কান কজ, দেঘত্তে আমার কি

অবস্থা, কিঙিরি কজ, আর’ ঘরাউনরে খাবেদং।

পঞ্চরতন             ঃ- আমার যেন খানা দরকার, আ তারার অহ্লে খানা দরকার

নেই-না পজু অয় ভিলি -কি তারারও কি রদ-বল-ন’ পরে না!

মানেকরতন          ঃ- ওইয়্যা, তুমি ঘুম য’। মুই ঘরাউনরে খাবাঙল্লই।

(মানেকরতন কন’ রগম বলে ধোরি উধি ঘরাউনরে

খাবেবাত্যায়  উধি যেব’ তারপর এ্যাহ্নে এ্যাহ্নে তারা

বম্বাউন লারে গোরি মিলেই যেবাক)

 

 

দৃশ্য-৯

 

অক্তঃ-বেন্যা মাধান।

জাগাঃ- গংগানদীর থুম হিমালয় মুরো লেজা।

 

(বেলান রাঙা চিক চিক গোরি পূগেদি উধিব’ । দ্বিবে উক্ক পেগো র’ শুন’ যেব’। যার ধগে তে কাবর উরিহ্ উরিহ্ ঘুম যেবাক। তারাত্তুন বানা পঞ্চরতনে ঘুমত্তুন জাগী শিরে আলক আলক গোরি ইন্দি উন্দি চেই ঘুমত্তুন উধি কেইয়্যা মোজোরি ইন্দি উন্দি পায়চারী গোরি উক্ক খুঝীর ডাক দিব’)

 

পঞ্চরতন             ঃ- ও ভেই লক, উধ’ উধ’ পহ্র ওইয়্যা! আহ্ধ মু ধোই লারে

লারে আর’ আহ্ধা ধত্তং মালেহ।

( হাক্কে পুগেদি হাক্কে পজিমেদি, হাক্কে উত্তোরদি আর’ হাক্কে

দগিনেদি রেনী চেই আর’ খুজীয়ে জোগার পারিব’)

-দগিনেদি, ওই দগিনেদি

(আঙুল-দি দেঘেই দিব’)

-গংগা নদীর পার অভদে পারা পাং অয় অয় তুভোলুন

ঝিলিক ঝিলিক  গরদন। ওই ভেই লক, এধা চেদাগী

বরগাঙ পারত বেলান আহ্ঝত্তে।

মানেকরতন          ঃ- (ঘুমত্তুন মুউজ্যা বাদে) পঞ্চ ভেই কি দেঘত্তে?

পঞ্চরতন             ঃ- বরগাঙ পার। (আর’ পজিমেদি টাগি চেই কব’)

 

-ইন্দি  পজিম  অভদে পারা পাং অয় অয়, (দুরত দেঘেই

দি) ওই দুরত গোরি দেঘা যাত্তে সিয়েন নিশ্চয় নৈরঞ্জনা

নদীয়েন অভ’দে। ও ভেই এয’-না, এক্কা চ-গী।

অগ্নীরতন             ঃ- ও (হম্মিজখেই) কি ভেই পঞ্চরতন, কি স্ববনে দেঘর না

পত্থমে দেঘর? তুই এচ্যা ঘুমও দোলে যেবার ন’ দিবেদে।

পঞ্চরতন             ঃ- পহ্র ওইয়্যা- দ’। উধ-না। দেরী গোল্যা, গংগা নদী

পারত  লুমদেগোই আর বেল আহ্লেব’।

( আর’ পুগেদী রেনি চেই)

-এ্যাই, ইয়েন ইরাবতী গাঙান দেঘা যাত্তে পারা পাং।

বেলরতন             ঃ- ন’ পারিব’-দে তল্লই। (বেলরতনে ঘুমত্তুন উধি)

-পধে পধে গেলে অল’। কি দরকার। হাক্কে গংগা  নদী,

হাক্কে নৈরঞ্জনা নদী, হাক্কে ইরাবতী নদী।

বায়ুরতন              ঃ- (তেও ঘুমত্তুন উধি চোখ পুঝি পুঝি) কোই-কোই-কুভন ?

(এবার পঞ্চরতনে দেঘেই দেদে দেদে ক্রমে ক্রমে বেক্কুন

ঘুমত্তুন উধি রেনী চেবাক)

অগ্নীরতন             ঃ- সালেন আমি কন বামত আগিয় -দে?

মানেকরতন          ঃ- মনে অয় আমি যে’ হিমালয়র তারেঙ মাধাত আঘিয়।

পঞ্চরতন             ঃ- ওইয়্যা ওইয়্যা, মুই বুঝি পায্যং, আঘি মুদি আঝের ওই –

ল’ যেদং মালে।

 

(এবার বেক্কুনে ইন্দি উন্দি যাদন কিয়ে আহ্ধ ধধন, কিয়ে আঘা সালত যাদন, কিয়ে থাল আহ্ধত ধোরি খানা নিঘিলেদন। উন্দি ঘরাউনেও অক্ত অক্ত কিজিরিক কিজিরিক দগরী উধন)

 

 

 

 

 

দৃশ্য-১০

 

অক্ত ঃ -দিন।

জাগা ঃ- (কাবুলর ফজিলাবাদ নগর নিবুলী ঝার)

 

(কান্ত ওই রতনদাঘী পিদিত্তুন ব্যাগপত্র ভূগ ভাগ থোই বিরেট পাগল্যা গাঝত তলে তারা নিজ’রে ব্যাক্কুনত এ্যাহলান দি-দি ভেধের চেদের অভাক)

বেলরতন             ঃ- উহ্ ! কী মরার, এচ্যা কয়দিন- কয় রেদ- ঘরত্তুন লাম্মেই,

এয’ ধুও জাগাদ নিঘিলি ন’ পারিয়। উহ্ ! মুই আর ন’

পারঙর ভেই লক।

পঞ্চরতন             ঃ- বল-দ’ কারর নেই! ব্যাঘ অহ্রাণ ওইয়্যায়। ঠিগ আঘে

ইয়দ হাক্কন জিরেই লোই,ঘরাউনেও এক্কা ঘাস খেইলোদোক

অগ্নীরতনঃ-           ঃ-ও ভেই লক, ইয়েন কন রেজ্যত এলঙ ?

পঞ্চরতন             ঃ- এ্যাই অঘুর নিবুলী ঝার সেরেত্তুন কিঙিরি উধিজ গোরি

পারিবং।

বায়ুরতন              ঃ- মত্তুন মনে অত্থে কাবুল রেজ্যর ফাজালাবাদ। মুরো-মুরি

টারেং ইয়েনী লোই হিমালয় ফেলেই এচ্যাই দে এচ্যা

কয়দিন অল’।

মানেকরতন          ঃ- ন’ ওল কলে-দ’ মাঝ’ কুরে কুরে ওই পারে।

পঞ্চরতন ঃ- এ্যাই মানষ্যর র-ছ নেই, পজু পক্কীর র-ছ নেই, এ জাগাত আমি কিঙিরি এলং। তেহ্ ধুও জাগাত নিঘিলি যেবং কিঙিরি।

বেলরতন ঃ- খাদ্য পত্রও বেঘ থুম ওই যার, কিঙিরি কি অভ’ পারা প’ ভেই লক।

অগ্নীরতন ঃ- ভালাই মোক্কুন ন- আনিয়। আনিধং কি অবস্থা ওলুন ভেই লক, বুঝর নি?

বেলরতন ঃ- ধুর তর মোক-থোক। কিঙিরি উদ্দোর অভে সিয়েন চিন্তে গর!

পঞ্চরতন ঃ- আচ্ছা ভেইলক, আমি হিমালয়র মুরো লেজাত্তুন গংগা নদীর পারে পারে এ্যাই দঘিনে পঝিমে নয় এচ্যাই-দে!

রতনদাঘী ঃ- অয়-অয়!

পঞ্চরতন ঃ- সালেন ইয়েন কাবুল রেজ্যর ফাঝালাবাদর কুরে কাঝে আঘিয়। চিদে নেই, এবার ধুওত নিঘিলি পারিবোঙ্গই।

মানেকরতন          ঃ- ভেইলক, সালেন উধিয়। বেল থাগ’দে ইত্তুন নিঘিলি পাল্যা দোল অভ’। আমারে যে ফিচ্ছিঙে বেরেইয়্যা, মুই ভারী দরাঙর।

অগ্নীরতন ঃ- কী দরত্তে! মরদ পুও কি সাত বেজা খেলে যে-সে বাবর নাং।

পঞ্চরতন ঃ- উধ’ যার ভূদি তে গমে দালে ল’। চেইয়্য পঝা বিরে ফেলেই ন’ যেইয়্য।

(এবার বেক্কুনে যার ভূদি তে লভাক। মানুষ্যুন ব্যাঘ ঝেদর কেদর ওই যেবাক। এগ’ জনর চেয়ারা চাগলক ওই যেব’। ভূদিউন লোই আহ্ধা ধোরিবেক। উন্দি ঘরাউন কিঝির কিঝির দোগোরী উধিবেক)

Print Friendly, PDF & Email

এই বিভাগের আরো লেখা পড়তে নিচের দেওয়া শিরোনাম এ ক্লিক করুন

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*
*