এই লেখাটি 672 বার পড়া হয়েছে

পাবর্ত্য চট্টগ্রামের চাকমা নাটক ‘ বান ’ ২৫ বছরের ঘটনা হরি কিশোর চাকমা

পাবর্ত্য চট্টগ্রামের চাকমা নাটক ‘ বান ’ ২৫ বছরের ঘটনা
হরি কিশোর চাকমা

পার্বত্য চট্টগ্রামের গত ২৫ বছরের নানান ঘটনা নিয়ে মঞ্চস্থ হলো চাকমা নাটক ‘ বান ’। একই সঙ্গে ব্যাপক সম্ভাবনা ও প্রতিশ্র“তি নিয়ে আত্মপ্রকাশ করল চাকমা ভাষার নাট্য সংগঠন ‘ রংঢং থিয়েটার ’। ২২ নভেম্বর ২০০৮ইং শনিবার সন্ধ্যায় রাঙ্গামাটি উপজাতীয় সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে (ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউট) ‘ বান ’ নাটক অনেক দর্শককে ভিটেবাড়ি হারানোর বেদনায় কাঁদিয়েছে, স্বপ্ন ভেঙে যাওয়ার দু:খে হতাশায় ভাসিয়েছে আর কখনো হঠাৎ রসবোধে হাসিয়েছে। মাত্র আট মাস বয়সী একটি নাট্য সংগঠনের এমন পরিবেশনা দর্শকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে।

নাটকের পটভূমি নির্বাচনে নাট্যকার মৃত্তিকা চাকমা মুনশিয়ানার পরিচয় দিয়েছেন। তিনি এমন সময়কে বেছে নিয়েছেন যে ২৫ বছর পার্বত্য চট্টগ্রামের সবচেয়ে ঘটনাবহুল। নাটকের শুরু কাপ্তাই বাঁধের (১৯৬০) কিছু সময় আগে আর শেষ আন্দোলনে বিভক্তি তথা জম্ম জাতির অবিসংবাদিত নেতা মানবেন্দ্র নারায়ন লারমার (প্রতীকি)অর্থে মৃত্যুর (১৯৮৩) ঘটনার মধ্য দিয়ে। মাঝখানে রয়েছে বাঁধের পানিতে পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষের ভিটেবাড়ি হারানো, অনিশ্চিত পথে যাত্রা ও নতুন করে বাঁচতে শেখার পটভূমি , বাংলাদেশের স্বধীনতা আন্দোলন আর পাহাড়ীদের ওপর নির্যাতন এবং অধিকার আদায়ের সংগ্রাম। রসাত্মক ভাবে উঠে এসেছে আদিবাসীদের সরলতা আর কিছু মানুষের অধপতনের কাহিনী।

নাট্যকার তার জবানীতে বলেছেন , নাটকটি রচনা করতে সময় লেগেছে ২৩ বছর। যদিও নাটকের অংশ বিশেষ বিভিন্ন জায়গায় একাঙ্কিকা হিসেবে ছাপা হয়েছে। নাট্যকার দীর্ঘ সময় ধরে নাটকটি লেখার বিষয়ে ‘ সবুরে মেওয়া ফলে’ বাংলা প্রবাদের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেছেন নাট্যনির্দেশক পূর্ণ বিকাশ চাকমার হাতে ‘ মেওয়া ফলতেও তো পারে’। ফলেছে অনেক কিছু। বিশেষ করে আদিবাসী ভাষায় নাট্যচর্চাকে এগিয়ে নেওয়ার স্বপ্ন বুনতে সহায়তা করবে ‘বান’ এর মঞ্চায়ন।

নাটকের কেন্দ্রীয় চরিত্র পার্বতী বাপ, তাঁর গর্ভবতী স্ত্রী, মেয়ে পার্বতী আর ছেলে পরানধন। তাঁদের পাশে রয়েছে নানান কিসেমের মানুষ। কেউ সহজ সরল,কেউ অধপতিত চামচা, টাউট বাটপার ,কেউ বিপ্লবী।নাটকে কাপ্তাই বাঁধের সময়সহ বিভিন্ন পটভূমিতে লেখা বেশ কিছু জনপ্রিয় চাকমা গান সংযোজন করা হয়েছে।নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন – বিনয় কান্তি চাকমা, পরিতোষ তালুকদার, আশীষ চাকমা, প্রীতিবরণ চাকমা, পলাশ ত্রিপুরা, মিলনস্মৃতি চাকমা, দেবজ্যোতি চাকমা, রিলেন চাকমা, রিগেন চাকমা, চম্পা চাকমা, প্রমি তালুকদার ও রিপু চাকমা।

লেখক পরিচিতিঃ- হরি কিশোর চাকমা, সাংবাদিক, প্রথম আলো, রাঙামাটি প্রতিনিধি।

Print Friendly, PDF & Email

এই বিভাগের আরো লেখা পড়তে নিচের দেওয়া শিরোনাম এ ক্লিক করুন

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*
*